মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:০৩ অপরাহ্ন

৯ আনা স্বর্ণের চেইনের জন্য বৃদ্ধাকে হত্যা, আসামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

মো: তুষার আহম্মেদ / ৩৭ বার
আপডেট সময়: বুধবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২৩, ২:০৭ অপরাহ্ন

তুষার আহাম্মেদ –  মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার পালগাঁও গ্রামে বৃদ্ধা আবেদা খাতুনকে হত্যার ঘটনায় আল-আমিন মল্লিক (৩৩) নামের যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এবং ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডের রায়। বুধবার (২৯ নভেম্বর) দুপুর ১২ টার দিকে জেলা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২ বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন উর্মি রায় ঘোষণা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. হাছান ছারওয়ার্দী।

আল-আমিন একই গ্রামের প্রয়াত রাজ্জাক মল্লিকের ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে ফরহাদ বাদী লৌহজং থানায় মামলা দায়ের করে। পরে ওই মামলায় আদালতে ১৭ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করে এ রায় দেন।
মামলার সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ১৫ আগস্ট লৌহজং উপজেলার পালগাঁও গ্রামের প্রয়াত রুস্তম হাওলাদারের ছেলে বাদী ফরহাদ হাওলাদার ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে বাড়িতে বেড়াতে আসে। বাড়িতে এসে ফরহাদ তার মাকে বাড়িতে না পেয়ে ঐ সময়
 তার ছেলে মিজানুর ও স্ত্রীকে খুঁজতে পাঠায়। পরে ফরহাদ তার মাকে অনেক খুজাঁখুজিঁর পরে তাদের বসত ঘরের পিছনে নীচু ধানক্ষেতে পানির মধ্যে তার মাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। তার মা স্বাভাবিকভাবে মারা গেছে ভেবে দাফন শেষে সন্ধ্যার দিকে বাড়িতে ফিরলে তাদের বসত বাড়িতে আসামি আল-আমিনের পায়ের স্যান্ডেল পরে থাকতে দেখতে পায়।
পরে একই বছরের ১৬ আগস্ট গ্রামের লোকজন সহ ফরহাদ আসামি আল আমিনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে আল-আমিন নিহত আবেদা খাতুনের গলায় থাকা ৯ আনা ওজনের স্বর্ণের চেইন টান মেরে চুরি করার সময় বাঁধা দেওয়ায় দেয়ালের সাথে ধাক্কা মেরে পানিতে ফেলে দিয়ে, শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করে।

এ ব্যাপারে রাষ্ট্র পক্ষের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট মো. সিরাজুল ইসলাম পল্টু বলেন, ১৭ জন সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত আসামিকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন। বিচারকের এ রায়ে বাদী ও রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট।

মুন্সীগঞ্জ।
মোবা-০১৭১৯২৮২৬১৪
0Shares


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com